ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

এনএনবিডি ডেস্ক

১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৭:১০

শনাক্ত কমলেও বেড়েছে মৃত্যুর সংখ্যা

21196_4444.JPG
সারা দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু সংখ্যা দাড়াল ২৭ হাজার ৭৩০ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৫১৮ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৬৪ হাজার ১৯ জন। মৃত ১৭ জনের মধ্যে পুরুষ আট জন ও নয় জন নারী।

বুধবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫০৫ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ২৫ হাজার ৬৭৩ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮২১টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ২১ হাজার ৯৮৬টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২২ হাজার ১৫৩টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এক কোটি বিশ হাজার ৬৯৭টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২ দশমিক ৩৪ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৬১ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৫৪ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১৭ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে রয়েছেন ১৩ জন, চট্রগ্রাম বিভাগে একজন, খুলনা বিভাগে দুইজন, বরিশাল বিভাগে একজন রয়েছেন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ১৬ জন। আর বেসরকারি হাসপাতালে মারা যান একজন।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে দুইজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে নয়জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে একজন এবং ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে দুইজন রয়েছেন।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ১৯৭ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৩৬০ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন তিন লাখ ৮৩ হাজার ৭৭০ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন তিন লাখ ৪৫ হাজার ৯০ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৩৮ হাজার ৬৮০ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।