ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৯

কুকুর-ইঁদুরের প্রস্রাবে ভয়াবহ রোগ ‘লেপটোস্পাইরোসিস’

20533_333.jpg
সারাবিশ্বে করোনা সংক্রমণের ভয়াবহতা অনেকটাই কমে এসেছে। স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চেষ্টা করছে মানুষ। কিন্তু এরইমধ্যে ভারতে ভয় ধরাচ্ছে নতুন এক রোগ। যার নাম লেপটোস্পাইরোসিস। এটি মূলত কুকুর ও ইঁদুরের প্রস্রাব থেকে ছড়ায়। ইতোমধ্যে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে বিষয়টি নিয়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, কুকুর-ইঁদুর কিংবা গবাদি পশুর শরীরে এক ধরনের স্পাইরাল ব্যাকটেরিয়া দেখা দিয়েছে। যা প্রস্রাবের মাধ্যমে ছড়ায়। এটি শরীরে লাগলেই বিপদ। বিশেষ করে বর্ষায় ও বর্ষা পরবর্তী স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়ায় এই রোগ বেশি ছড়ায়। শরীরে ব্যাকটেরিয়া প্রবেশের পর উপসর্গ দেখা দিতে ৫ থেকে ১৪ দিন সময় লাগে।

কোনও কোনও সময় এক মাস পরেও অসুখ দেখা দিতে পারে। যেটা একজন মানুষকে মৃত্যু পর্যন্ত নিয়ে যেতে পারে। এই রোগের উপসর্গ হলো- চোখ লাল হওয়া, ঘাড় ‘স্টিফ’বা শক্ত হয়ে যাওয়া, কোনও কারণ ছাড়াই হঠাৎ জন্ডিস ও তলপেটে ব্যথা। এসব উপসর্গ দেখা দিলেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে বলা হয়ছে।

পরামর্শে আরও বলা হয়েছে, যারা নালা পরিষ্কার করেন তাদেরই সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই যাদের নোংরায় কাজ করতে হয় এমন পেশার লোকদের গ্লাভস এবং পায়ে জুতো পরে কাজ করতে বলা হয়েছে।