ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

এনএনবিডি২৪ ডেস্ক

২৩ জুন ২০২১, ১৭:০৬

ফেসবুক হ্যাক করে নারীদের থেকে টাকা আদায় করতেন তিনি

18697_mamun fb hack.jpg
ছবি- সংগৃহীত

ফিশিং লিংক (কাউকে ধোঁকা দিয়ে হ্যাক করতে অনলাইন মাধ্যমে পাঠানো লিংক) ব্যবহার করে প্রবাসী নারীদের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে মামুন মিয়া (২০) নামের একজনকে সুনামগঞ্জ জেলার হাওর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশের সাইবার এন্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ।

আজ বুধবার ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে এ নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার এসব তথ্য জানান।

সুনামগঞ্জের দোয়ারবাজার এলাকা থেকে গত সোমবার দিবাগত রাত একটার দিকে মামুনকে গ্রেপ্তার করে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। তাঁর মুঠোফোনটিও জব্দ করা হয়েছে।

পুলিশ বলছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের প্রবাসী নারীদের টার্গেট করে ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপের মাধ্যমে পরিচিত হতেন তিনি। নারী সেজে বিভিন্ন ছেলেদেরকেও পাঠাতো ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট।

এরপর ফেসবুকের মতো দেখতে হুবহু নকল আরেকটি সাইট তৈরি করে সেই লিংক ইনবক্সে শেয়ার করে বলতেন, আমি একটি ফটো কনটেস্টে অংশগ্রহণ করেছি। আমাকে একটি ভোট দিন। তাকে ভোট দেয়ার জন্য ওই লিংকে ক্লিক করে প্রবেশ করতে চাইলে নতুন করে আইডি ও পাসওয়ার্ড দিতে হতো। আর এভাবে নারীদের আইডি হ্যাক করে নিতেন টাকা আদায় করতো এই তরুণ।

হাফিজ আক্তার বলেন, গ্রেপ্তার মামুন মিয়া একজন তরুণ। মাত্র এস. এস. সি. পাশ করা এই তরুণ নিজেকে অপ্রতিরোধ্য ঘোষণা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহার করে বিভিন্ন নারীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন।

তিনি বলেন, গ্রেপ্তার মামুন স্থানীয় একটি ট্রেনিং সেন্টার থেকে আইটির উপর একটি কোর্স করে প্রতারণা শুরু করেন। অভিনব কায়দায় প্রতারণার পাশাপাশি ভুক্তভোগী নারীদের চ্যালেঞ্জ করে বলতেন, তার প্রতারণার কৌশল কেউ প্রমাণ করতে পারবে না। এমন কি তাকে ধরতে পারলে ১ হাজার ডলার পুরস্কার দেয়ার ঘোষণা দেন মামুন।

প্রবাসী নারীদের ফেসবুক আইডি হ্যাকের অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, মামুনের বয়স কম হলেও সে প্রতারণায় পাকা। এরই মধ্যে সে বহু নারীদের আইডি হ্যাক করে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এ টাকা দিয়ে বিলাসী জীবন যাপন করতো সে। দেশের একটি প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাস করলে মামুন ব্যবহার করতেন দামি মোটরসাইকেল এবং আইফোন ম্যাক্স মডেলের মোবাইল ফোন। মামুনকে গ্রেপ্তারের সময়ে এগুলো জব্দ করা হয়েছে।

আইডি হ্যাক করার পরে ভুক্তভোগী নারীদের ছবি ব্যবহার করতো কিনা ওই বিষয়েও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলেন জানান ডিবির এই কর্মকর্তা।

মামুনের নামে ফেসবুক হ্যাক করার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা হয়েছিল আরও আগে। আজ তাঁকে আদালতে পাঠিয়ে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।