ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

সালাউদ্দিন কাদের

১২ জুন ২০২১, ১৬:০৬

সাকিব সঠিক নাকি বেঠিক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

18346_46+++64122.jpg
ছবি- সংগৃহীত
বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) আবাহনী-মোহামেডানের ম্যাচের সময় বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান স্ট্যাম্পে লাথি ও আছাড় দিয়ে যে আচরণ করেছেন তা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।
 
ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ ফেসবুকে লিখেছেনন, ‘খেলোয়াড় হিসেবে সাকিবকে সমর্থন করি। তবে মানবিক মানুষ বলুন আর সৌম্য শান্ত ভদ্র মানুষ বলুন, এমন কোনও গুন এ পর্যন্ত চোখে পড়েনি।’
 
আশিকুর রহমান রেজভী নামে একজন সাকিবের পক্ষ নিয়েছেন। তার মন্তব্য, ‘বেয়াদবির জন্য যদি দুর্নীতি দূর হয়, তাহলে বেয়াদবিই ভালো। সাকিব ঠিক ছিলে, ঠিক আছে, ঠিক থাকবে।’
 
আর আই জুয়েল লিখেছেন, সাকিব যা করেছে ভালো করেছে।সব কিছুতেই দুর্নীতি সহ্য করার নয়।
 
দিদার হাসান প্রশ্ন রেখেছেন, ‘সাকিব প্রতিবাদী না বেয়াদব?’ ইসমাইল আকন্দ হিমেলের বলেছেন, স্ট্যাম্পে লাথি এ আর এমন কি, আমরা তো ক্রিজ কোপাইয়া দিয়ে আসতাম।’
 
একরাম  হাসান লিখেছেন, এরকম করাটা খুব সময়ের দাবি ছিলো, ফিক্সিং বাণিজ্য বন্ধের জন্য। যা সাহসী সাকিব করেছে। সাকিবকে ধন্যবাদ এমন প্রতিবাদের জন্য..।!
 
শাাহিন আহমেদ লুলু নামের একজন লিখেছেন,সাকিব আল হাসান ক্রিকেট কে একটু বেশি ভালোবাসেন,যেটা করেছেন সেটা অন্যায়!তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে এরকম অন্যায় করাও উচিৎ।
 
আহমেদ রুবেল খান লিখেছেন., সাকিব আজ যা করছে তার জন্য বিসিবি হয়তো তাকে কিছুদিন অথবা কিছু মাসের জন্য নিষিদ্ধ করবে কিন্তু নিম্নমানের আম্পায়ারিং বা পুকুরচুরির দায় কি বিসিবি নিবে?
 
সাকিব অবশ্য নিজের ফেসবুক পেজে, এমন ঘটনার জন্য আগেই ক্ষমা চেয়েছেন।
 
তার ভেরিফাইড পেইজ এ বলেন ,
 
প্রিয় ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা,
যারাই আজকের ম্যাচে আমার আচরণ দেখে কষ্ট পেয়েছেন বিশেষ করে ঘরে বসে যারা খেলা দেখেছেন, তাদের কাছে আমি দুঃখ প্রকাশ করছি এবং ক্ষমা প্রার্থনা করছি।আমার মতো অভিজ্ঞ একজন ক্রিকেটারের কাছ থেকে এমনটা মোটেও কাম্য নয়, কিন্তু মাঝে মাঝে প্রতিকুল পরিবেশে এমনটা হতেই পারে।এমন ভুলের জন্য সকল দল, কর্তৃপক্ষ, টুর্নামেন্ট সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তা ও অর্গানাইজিং কমিটির কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। আশা করি ভবিষ্যতে এমন কোন কাজে আমি আর জড়াবোনা। সবার জন্য ভালোবাসা।