ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:
ব্রেকিং নিউজ
  • মালয়েশিয়ায় সর্বাত্নক লকডাউনের ঘোষণা
  • সোহবত ছাড়া দাওয়াত ফলপ্রসূ হয় না
  • দশ মিনিটে ক্যান্সার পরীক্ষা, হার্ভার্ডে ডাক পেলেন আবু আলী
  • দ্বিতীয় শ্রেণিতে পাশ করেও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক!
  • দেশে নতুন সেনাপ্রধান এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ

এনএনবিডি ডেস্ক

১২ মে ২০২১, ১১:০৫

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে মানুষের উপচেপড়া ভিড়, চলছে বাস

17327_312521.jpg
ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে আজ বুধবার ভোর থেকেই বিপুলসংখ্যক যানবাহন দেখা যাচ্ছে। এর মধ্যে ট্রাক, পিকআপ ভ্যান, ব্যক্তিগত গাড়ি ও মোটরসাইকেলের সংখ্যা বেশি। রাস্তায় চলতে শুরু করেছে উত্তরাঞ্চলের কিছুসংখ্যক বাস।

সকাল সাতটার দিকে মহাসড়কে মির্জাপুর বাইপাস বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে দেখা যায়, উত্তরাঞ্চলগামী ঘরমুখী মানুষের ভিড়। বাসস্ট্যান্ডের পশ্চিম পাশে ওভারব্রিজের শেষ মাথায় লোকজন অপেক্ষা করছেন যানবাহনের জন্য। তাঁরা মালামালবোঝাই কিংবা খালি ট্রাক, পিকআপ থামতে দেখলেই তাতে উঠে গন্তব্যে যেতে দৌড়াচ্ছেন। অতিরিক্ত ভাড়ায় যাত্রী হচ্ছেন মানুষ। শিশু থেকে শুরু করে নারী-পুরুষ সমানতালে গাদাগাদি করে ট্রাক-পিকআপের যাত্রী হচ্ছেন। 

গাজীপুরের চন্দ্রা থেকে সিরাজগঞ্জের রোড এলাকা পর্যন্ত মোটরসাইকেলের যাত্রী হয়েছেন একটি কারখানার দুই শ্রমিক। মহাসড়কের ছয়দানা এলাকায় রাস্তার পাশে মোটরসাইকেল থামিয়ে চালক বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। এ সময় ওই দুই শ্রমিক কথা বলতে না চাইলেও চালক শফিকুল ইসলাম বলেন, তিনি ১ হাজার থেকে ১ হাজার ২০০ টাকায় চন্দ্রা থেকে সিরাজগঞ্জ রোড পর্যন্ত ট্রিপ দিচ্ছেন। কষ্ট বিবেচনায় লাভের মুখ খুবই কম দেখছেন।
টাঙ্গাইলগামী যাত্রী শামীম বলেন, ‘জেলার ভেতরে চলার জন্য যেসব বাস, তার সংখ্যা খুবই কম। মানুষ মোটরসাইকেলে চলাচল বেশি করছে। তবে মোটরসাইকেলর গতি খুবই বেপরোয়া হয়ে গেছে।’

এদিকে মহাসড়কের কদিমধল্যা এলাকায় প্রায় ১৫ মিনিট অবস্থান করে দূরপাল্লার বাস চলতে দেখা গেছে। বাসগুলোর মধ্যে সেন্টমার্টিন পরিবহন, হানিফ এন্টারপ্রাইজ, আর ভি এ ট্রাভেল, সোনালি ক্ল্যাসিক, পাবনার শাহান পরিবহন, সিরাজগঞ্জ-রংপুরের জেনিন পরিবহন, কুমিল্লাগামী বোগদাদ পরিবহনসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বাস রয়েছে।

মুঠোফোনে মির্জাপুরের গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোজাফফর হোসেন বলেন, ‘রাস্তার অবস্থা ভালো আছে। সারা রাত মহাসড়কে ছিলাম। চোখ ফাঁকি দিয়ে কিছু বাস যাচ্ছে। শতভাগ ঠেকানো এই মুহূর্তে সম্ভব হচ্ছে না।’