ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন মোল্লা

৫ আগস্ট ২০২০, ১৩:০৮

ইসলামের বিধান মানুষের জন্য কল্যাণকর সে বার্তাই দেয় কুরবানির ঈদ

14381_156820.jpg
আলহামদুলিল্লাহ, ইসলামের প্রতিটি বিধান যে মানুষের জন্য কল্যানকর, এবারের কুরবানির ঈদ তা বিশ্ববাসীকে আবারও জানিয়ে দিয়েছে। ভাল করে খেয়াল করলে বিষয়টা প্রতিটা বিবেকবান মানুষের কাছেও পরিষ্কার হয়ে যাবে।

কুরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য গরিব-ধনীদের বিভিন্ন হাটে যেতে হয়েছে। প্রতিটি হাটেই ছিল উপছে পড়া ভীড়। আর এতে বেশ লেনদেন হয়েছে। এরপর কুরবানির গোশত বিলি বন্টনেও দৌড় ঝাপ কম হয়নি।

ফলে দীর্ঘ লক ডাউনে পড়ে যাওয়া ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতি কিছুটা হলেও উর্ধ্বগামী হয়েছে।

এবারের ঈদে আরেকটা খুব ভালো কাজ হয়েছে, করোনাকে ভুলে অনেকেই বাইরে বেড়িয়ে পড়েছে। বিশেষ করে যারা গত ৪ মাস করোনার ভয়ে নিজেকে অনেকটা আইসোলেসনে রেখেছিল, একেবারেই বের হয়নি তাদেরকেও এবার বাইরে দেখা গেছে।
এতে করে অর্থনীতির যে বেহাল দশা, আশাকরা যায় তা ক্রমান্বয়ে ভালোর দিকে ধাবিত হবে।

করোনাকে অজুহাত করে কোরবানি ঈদের এই অর্থনীতিটুকু বন্ধ করার একটা ষড়যন্ত্র হচ্ছিলো। সচেতন প্রতিটি মানুষের মনে থাকার কথা একশ্রেণির ষড়যন্ত্রকারীরা প্রথমে বললো হাট বন্ধ করতে, তারপর বলা হলো- কোরবানী না করে সব টাকা বিলি করে দিতে।

তারপর কিছু এলাকায় কোরবানি নিষিদ্ধ করার কথা শোনা গেলো। এতে করে কুরবানি দাতারা অনেকেই চিন্তায় পড়ে গিয়েছিল, কিভাবে, কোত্থেকে কুরবানির পশু ক্রয় করবে, কোথায় জবেহ করবে, গোশত প্রস্তুত করার লোক পাবে কিনা, কিভাবে প্রস্তুত করবে ইত্যাদি। এরপর নানা কর্নার থেকে প্রতিবাদ আসতে থাকলে সেই গোষ্ঠীরা পিছু হঠতে বাধ্য হলো।

আলহামদুলিল্লাহ, এ ব্যাপারে ইসলাম প্রেমিক জনগণ একে অপরকে সহযোগিতার হাত প্রসারিত করায় পরিশেষে সুন্দরভাবে কুরবানির সামগ্রিক কার্যক্রম সম্পাদিত হয়েছে। অতএব চিন্তাশীল মানুষ মাত্রই বুজতে পারবে যে, ইসলামের প্রতিটি বিধান মানুষের কল্যানের জন্যই।