ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

নিউজ ডেস্ক

১১ অক্টোবর ২০২১, ১৭:১০

শাহরুখের ‘ডাবল বডি’ কাজ করবে স্পেনে!

21140_শাহরুখ.jpg
সংগৃহীত
বেশকিছুদিন আগে মাদক কান্ডে বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান গ্রেপ্তারের পর থেকেই মানসিক চাপে আছেন বলিউড বাদশা। ছেলেকে মুক্ত করতে এদিক-সেদিক ছুঁটে বেড়াচ্ছেন তিনি। ছেলের দুশ্চিন্তায় ঠিকমতো খেতে পারছেন না শাহরুখ। এমনকি ঘুমাতেও পারছেন না। ছেলে ঘরে না ফেরা পর্যন্ত আপাতত সিনেমার কাজ স্থগিত রেখেছেন কিং খান। এমন পরিস্থিতিতে শাহরুখের বডি ডাবল প্রশান্ত ওয়ালদে তার কাজ সামলানোর কথা নিশ্চিত করেছেন।
জানা যায়, এই মুহূর্তে পরিচালক অ্যাটলির সিনেমার শুটিংয়ের বাকি অংশগুলোতে কাজ করছেন প্রশান্ত ওয়ালদে। এমনকি বেশ কিছু কমার্শিয়াল বিজ্ঞাপনেও কাজ করছেন তিনি। এমনকি স্ট্যান্ড-ইন এই অভিনেতা 'পাঠান'-এর পরবর্তী সময়সূচির জন্য স্পেনে উড়ে যেতে প্রস্তুত। গত ১৫ বছর ধরে শাহরুখের বডি ডাবল হিসেবে কাজ করছেন তিনি।
প্রশান্ত ওয়ালদে ভারতীয় গণমাধ্যমকে জানান, ‘অ্যাটলির সঙ্গে সিনেমার শুটিং পরিকল্পনা অনুযায়ী চলছে। অন্য বিজ্ঞাপনগুলোরও কাজ চলছে। ২০ দিন ধরে আমি এই শুটিংয়ের কাজগুলো করছি। সাম্প্রতিককালেও এটার কোনো পরিবর্তন হয়নি। তবে একমাত্র পরিবর্তন হলো, শাহরুখ খান আজকাল সেটে আসছেন না।'
তিনি আরও জানান, 'সুপারস্টার তার অনুপস্থিতিতে ক্যামেরা রোলিং বন্ধ করতে মানা করেছেন। তিনি বুঝতে পারেন, তার অনুপস্থিতিতে শুটিং বন্ধ হলে অনেক কাস্ট এবং ক্রু সদস্যের আয়ে কিভাবে প্রভাব পড়তে পারে।'
স্ট্যান্ড-ইন এই অভিনেতা বলেন, ‘লকডাউনের পর আমাদের কাজ শুরু হয়েছে। সিনেমার শুটিংয়ের জন্য দক্ষিণ থেকে পুরো দল এখানে। শাহরুখ স্যারের জন্য কাজ অবশ্যই চালাতে হবে। ওনার কাজের সঙ্গে লক্ষ লোকের আয় জুড়ে রয়েছ, এটা শাহরুখ স্যার নিজেও জানেন। এ জন্য তিনি আমাদের কাজ বন্ধ করতে বলেননি, কাজ আগের মতোই চালু আছে। আমরা শুধু তার কারণে আজ বেঁচে আছি।’
প্রশান্ত জানান, ‘আমরা সবাই আমাদের ভিসা পেয়েছি, কিন্তু কবে স্পেনে যাবো এবং শাহরুখ স্যার আমাদের সঙ্গে থাকবেন কি না তা জানি না। আসলে আমি জানি না তিনি কবে সেটে ফিরবেন। কিন্তু আমরা নিশ্চিত যে, তিনি যা সিদ্ধান্ত নেবেন, তা আমাদের সবার জন্যই ভালো হবে।'
প্রসঙ্গত, মুম্বাইয়ের একটি প্রমোদতরীর পার্টিতে মাদক সেবনের অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান। নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)-এর কর্মকর্তাদের দীর্ঘ ৬ ঘণ্টার জিজ্ঞাসাবাদে মাদক গ্রহণের কথা স্বীকার করেছেন আরিয়ান। তাকে নারকোটিক ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্সেস (এনডিপিএস) আইনের আওতায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় লেখা রয়েছে- ৩০ গ্রাম কোকেন, ২১ গ্রাম চরস, ২২টি এমডিএমএ বড়ি এবং নগদ ১ লাখ ৩৩ হাজার টাকা পাওয়া গেছে।
আজ সোমবার (১১ অক্টোবর) মাদক মামলায় মুম্বাই সেশন কোর্টে জামিনের আবেদন করেন আরিয়ানের আইনজীবী সতীশ মানশিণ্ডে। তবে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে শুনানি শেষে বিচারক জানান, আগামী বুধবার (১৩ অক্টোবর) পর্যন্ত জেল হেফাজতেই থাকছেন আরিয়ান। বুধবার তার পরবর্তী শুনানি।
সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস