ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
সর্বশেষ:

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৪ আগস্ট ২০২১, ১৩:০৮

পদ্মা সেতুর পিলারের সুরক্ষায় অ্যাপ!

19922_Feature-Photo-1-750x563.jpg
পদ্মা সেতুর পিলারে নৌযানের ধাক্কা এড়াতে প্রযুক্তি ব্যবহারের উদ্যোগ নিয়েছে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। কোনও নৌযান ঝুঁকিপূর্ণভাবে পদ্মা সেতুর পিলারের দিকে অগ্রসর হলে অন্তত পাঁচশ’ থেকে তিনশ’ মিটার দূরে থাকতেই সিগন্যাল দিয়ে নৌযান মালিক, চালক ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেবে।

এ কাজের জন্য ‘জাহাজী’ নামের অ্যাপটি আপডেট করেছে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ নৌপথের একমাত্র প্রযুক্তি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান 'জাহাজী'। আগামী সপ্তাহ থেকে গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যাবে অ্যাপের আপডেট সংস্করণ।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) বিকালে জাহাজী লিমিটেডের পরিচালক ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা অভিনন্দন জোতদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, ‘প্রতিদিনই ফেরির ধাক্কায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে আমাদের স্বপ্নের পদ্মা সেতুর পিলার। এজন্যই আমরা উদ্যোগ নিয়েছি কিছু একটা করার। প্রযুক্তি দিয়ে এ সমস্যার সমাধান সম্ভব।’

গুগল প্লেস্টোরে 'জাহাজী' নামে অ্যাপটি আগেই ছিল। এটি মূলত নৌযান ট্র্যাকিং অ্যাপ। মালিকরা তাদের নৌযানের অবস্থান বের করতে এটি ব্যবহার করেন। অ্যাপটির আরও আধুনিকায়ন করা হয়েছে।

অভিনন্দন বলেন, ‘জাহাজী ব্যবহারকারীদের জন্য আমরা নতুন একটি ডিজাইন অবমুক্ত করতে যাচ্ছি আগামী সপ্তাহে। যেখানে পদ্মা সেতুর পিলার বরাবর লাল মার্কার দেওয়া থাকবে। জাহাজী সেবার নতুন ম্যাপে পদ্মা সেতুর জায়গায় আমরা এ ধরনের মার্কার বসিয়েছি। জাহাজী ডিভাইস বসানো যেকোনও নৌযান এই মার্কারের কাছে এসে যদি গতি না কমায়, সঙ্গে সঙ্গে অ্যালার্ট চলে যাবে জাহাজ মালিক ও সেতু কর্তৃপক্ষের কাছে।’

তিনি বলেন, ‘সেতুর পিলার বরাবর যে লাল দাগ টানা আছে, জাহাজ সেই দাগ ধরে গেলেও সতর্ক সঙ্কেত দেবে। যা কন্ট্রোল রুম থেকে দেখে আগেই চালককে সতর্ক করা যাবে। এই অ্যাপে জানা যাবে জাহাজের ট্রিপ হিস্ট্রি তথা কোন পথে চলেছে সেটাও।’
শুক্রবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নির্মাণাধীন পদ্মা সেতুর পিলারে সম্প্রতি কয়েক দফা ফেরি ধাক্কা দেয়ার পর প্রচণ্ড স্রোতের কারণে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌ-রুটে রো রো ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

এর আগে গত ২৩ জুলাই সকালে প্রথম মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাট থেকে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে আসার পথে পদ্মা সেতুর ১৭ নম্বর পিলারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে রো রো ফেরি শাহজালালের। এতে ফেরির ২০ যাত্রী আহত হন।

এরপর ৯ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বাংলাবাজার থেকে ছেড়ে আসা ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর সেতুর ১০ নম্বর পিলারে ধাক্কা খায়।

সবশেষ গতকাল শুক্রবার (১৩ আগস্ট) সকাল পৌনে ৭টার দিকে বাংলাবাজার ঘাট থেকে শিমুলিয়া ঘাটে আসার পথে কাকলি নামে একটি ফেরি পদ্মা সেতুর ১০ নম্বর পিলারে ধাক্কা দেয়। প্রতিটি দুর্ঘটনায় সাময়িক বরখাস্ত করা হয় ফেরির মাস্টার ও সুকানিকে।

পদ্মা সেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কার পর মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ফেরিঘাট, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুট এবং শরীয়তপুরের মাঝিরকান্দিঘাট পরিদর্শন করেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।